login

[Space For AD]

মিরাকল ভিলেজ

  • 63
  • 378
  • 40
  • 97

মিরাকল ভিলেজ

4 months ago 12

গ্রামটি মরিাকল ভলিজে নামে পরচিতি হলওে এর একটি ভন্নি পরচিয় আছ। এটি সিটি অব রিফিউজি বা নির্বাসিতদের গ্রাম নামওে পরচিতি। ধর্ষক বা ধর্ষণকারী সমাজের সকলের কাছে অতি নিকৃষ্ট হিসেবে পরিচিত। সবাই এদের ঘৃণা করে। এড়িয়ে চলে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে এমন একটি গ্রাম আছে যেখানে শুধু ধর্ষক বা কিংবা যৌন কেলেংকারীর দায়ে সাজা প্রাপ্ত অপরাধীরা বাস করে।

গ্রামটি নাম সিটি অব রিফিউজি বা নির্বাসিতদের গ্রাম। এই গ্রামের বাসিন্দারা সবাই জীবনের কোন না কোন সময় ধর্ষণ বা যৌন নির্যাতনের দায়ে সাজাপ্রাপ্ত। উত্তর ফ্লোরিডার পাম বিচ কাউন্টির এই গ্রামটি যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বিচ্ছিন্ন গ্রাম হিসেবে বিবেচিত।
পাম বিচ কাউন্টির বাসিন্দাদের কাছে গ্রামটি মিরাকল ভিলেজ নামে পরিচিত। তবে ২০১৪ সালে সরকারীভাবে গ্রামটির নাম পাল্টে সিটি অব রিফিউজি করা হয়। সবমিলিয়ে চুয়ান্নটি বাড়িতে ২০০ জনের মত বাসিন্দা আছে এই গ্রামে।

গ্রামটি গড়ে ওঠার পিছনে ফ্লোরিডার একটি আইনের কার্যকরী ভূমিকা রয়েছে। ফ্লোরিডার আইনে সাজা প্রাপ্ত ধর্ষক বা যৌন নির্যাতনের দায়ে সাজা প্রাপ্ত ব্যক্তিদের স্কুল, বাস স্ট্যান্ড, খেলার মাঠ এবং বাচ্চাদের এক হাজার মিটারের মধ্যে বসবাসে নিষেধাজ্ঞা প্রদান করা হয়। ফলে সাজা প্রাপ্ত অপরাধীরা এই স্থানে এসে বাস করে।

 

গ্রামটি গড়ে তোলার পেছনে রিচার্ড উইদিরো নাম একজন ব্যক্তির বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। রিচার্ড ছিলেন ফ্লোরিডার একজন রাজ্য মন্ত্রী। তিনি ফ্লোরিডার আইনে ধর্ষকদের এই নিষেধাজ্ঞা কথা জানতেন। তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এই গ্রামটি গড়ে ওঠে। তিনি চাইতেন লোকালয় থেকে দূরে ধর্ষকদের জন্য একটি আবাসস্থল গড়ে উঠুক। এতে করে সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন এই সব দাগী অপরাধীরাও যেন একটু স্বাভাবিক ভাবে বাকি জীবন কাটাতে পারে।

তবে এই গ্রামে চাইলেই যেকোন ধর্ষক বসবাস করতে পারে না। এখানে বসবাসের জন্য গ্রামটি পরিচালনার দায়িত্বে থাকা বোর্ডের নিকট আবেদন করতে হয়। প্রতি সপ্তাহে গড়ে বিশটির মত আবেদন পড়ে। কিন্তু গ্রহণ করা মাত্র একটি। কারণ শিশু ধর্ষণকারী, ক্রমিক ধর্ষক (সিরিয়াল রেপিস্ট) এবং মারাত্বক সহিংসতা সৃষ্টিকারীদের আবেদন গৃহিত হয় না।

[Space For AD]

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Subscribe to the newsletter
Please log in to share your opinion

Related Posts

Image

[Space For AD]

Subscribe to the newsletter